বাড়ি বানানোর টাকা না থাকায় যা করলেন এই দম্পতি

0
43

ক্যানাডিয়ান দম্পতি ক্যাথরিন কিং এবং ওয়েন অ্যাডামস টাকার অভাবে যখন নিজেদের বাড়ি বানাতে পারছিলো না তখন তাদের মাথায় একটি দারুন আইডিয়া আসে , তারা নদীর উপরেই বাসা বানানোর সিদ্ধান্ত নেয়।এই ক্যানাডিয়ান দম্পতি গত 24 বছর ধরে ব্রিটিশ কলম্বিয়ার তোফিনোর কাছে একটি হোমমেড দ্বীপে বাস করে।
তারা একটি হাত করাত,একটি হাতুড়ি ও একটি শাবাল নিয়েই কাজ শুরু করে দেয় । নদীর উপরেই একটি প্লাটফর্ম বানিয়ে সেখানে একটি বাসা তৈরি করে শুধু মাত্র থাকার জন্য অনেক বছর ধরে অক্লান্ত প্ররিশ্রম দিয়ে তারা এই রকম আরও ১২ টি প্লাটফর্ম তৈরি করেন । এবং ধীরে ধীরে একটি আইল্যান্ড তৈরি করে ফেলেন নদীর উপর । এই আইল্যান্ড এ রয়েছে থাকার জন্য বাড়ি , ওয়্যারহাউজ , নৃত্যের ফ্লোর,এমন কি রয়েছে লাইট হাউজ , চারটি গ্রিনহাউস এবং আরও অনেক কিছু নির্মাণ করেছেন। তারা সোলার প্যানেল এর মাধ্যমে আবার কখনও জেনারেটর দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে । তারা নিজেদের খাবার নিজেরা গ্রিনহাউস এ তৈরি করেন । নদী থেকে মাছ ধরে তারা আমিষের চাহিদা পূরণ করে এবং কাছের একটি ঝর্ণা থেকে পানির চাহিদা মেটান। তাদের দুটি বাচ্চাকেও সেখানে তারা লালন পালন করেছে।
ওয়েন বলেছিলেন: “আমি এর প্রতিটি বোর্ড জানি এবং তাদেরকে এক এক নাম দিয়ে পেরেক দিয়েছি।” নদীর উপর এই আইল্যান্ড দ্বীপটির উপকূলে বাঁধা এবং ওয়েইনের অনুমান যে এর ওজন প্রায় 500 টন।
ওয়েইন বলেছিল যে সে কখনই সি সিক হয় না এবং প্রকৃতপক্ষে, “আমি যখন শহরে যাই তখন আমি ল্যান্ড সিক হয়ে পড়ি।” এরকম আশ্চর্যজনক কাঠামো দেখার পরে, আমরা বুঝতে পারি কেন এটা হয়।
এই দম্পতি — ওয়েন অ্যাডামস একজন কার্ভার এবং ক্যাথরিন কিংএকজন অবসরপ্রাপ্ত বলেরিনা, লেখক ও চিত্রশিল্পী । তারা 1992 সালে আইল্যান্ডটি তৈরির কাজ শুরু করেছিলেন ।
ওয়েন অ্যাডামস এবং ক্যাথরিন কিং “ফ্রিডম কোভ” অঞ্চলটিতে আইল্যান্ডটি তৈরি করেছেন । সম্পূর্ণ পরিবেশ বান্ধব এই বাড়িটিতে দূর দূরান্ত থেকে অনেক মানুষ ভিসিটিং করতে আসে । ফ্রিডম কোভে যাওয়ার জন্য, আপনাকে পানিতে ভ্রমণ করতে হবে তবে ওয়েইন এবং ক্যাথারিন আইল্যান্ডটি ভিসিটিং করার জন্য ট্যুর সরবরাহ করে থাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here