বৃহস্পতিবার, ০৯ জুন ২০২২, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন

২ লক্ষ সাবস্ক্রাইবার উপলক্ষ্যে মিট আপের আয়োজন করেছে পেন্টানিক আইটি

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • সময় কাল : বুধবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৬৩ বার পড়া হয়েছে।
200k-subscribers-special-meetup-pentanik-it
200k-subscribers-special-meetup-pentanik-it
Spread the love

পেন্টানিক আইটির ইউটিউব চ্যানেল ২ লক্ষ সাবস্ক্রাইবারে পদার্পণ উপলক্ষ্যে প্রশিক্ষক এবং প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে মিট আপের আয়োজন করা হয়েছে। গত ৫ জানুয়ারি রোজ শুক্রবার এই মিট আপ প্রোগ্রামে সভাপতিত্ব করে পেন্টানিক আইটির ফাউন্ডার ও সিইও জনাব রাকিবুল ইসলাম রাকিব।
এই প্রোগ্রামে সকল প্রশিক্ষকদের সম্মাননা স্বারক প্রদান করা হয় এবং অংশগ্রহণকারী প্রশিক্ষণার্থীদের উপহারস্বরূপ সার্টিফিকেট এর বাধাইকৃত হার্ড কপি প্রদান করা হয়।
পেন্টানিক আইটির ফাউন্ডার ও সিইও জনাব রাকিবুল ইসলাম রাকিব বক্তব্যে জানান যে, পরবর্তীতে এই মিটআপ প্রোগ্রামগুলো ট্যুরের মাধ্যমে করা হবে, বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় আয়োজন করা হবে। মিট আপের মূল উদ্যেশ্য হচ্ছে পরিচিতি। আমাদের অনেক গুলো সিস্টার কনসার্ন রয়েছে যেগুলোতে আইটির জনবল প্রয়োজন হয়। আমরা সব সময় চেষ্টা করি আমাদের প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে থেকে নিয়োগ করার জন্য। আপনারা চেষ্টা করলে এবং প্র্যাকটিস চালিয়ে গেলে এই জায়গাগুলো আপনাদের পক্ষে অর্জন করা সম্ভব। আমরা সামনে ডেভেলপমেন্ট এর আরো কিছু পরকল্পনা নিয়ে আসছি । পেন্টানিক আইটি আমার একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। আমি চাই যে, শিশু থেকে বৃদ্ধ পর্যন্ত সবাই যেন এখানে ফ্রী প্রশিক্ষণ নিতে পারে।

সাইবার সিকিউরিটির ট্রেইনার জনাব মহসিন হাসান বলেছেন যে, ইথিক্যাল হ্যাকিং কোর্স নিয়ে অনেকের মধ্যে ভুল ধারনা আছে। অনেকেই ভাবেন যে কোর্সটি করলে আমি যে কারো একাউন্ট হ্যাক করে ফেলতে পারবো। আসলে আমাদের এই কোর্সের উদ্যেশ্য এটা না। বেসিক কিছু সিকিউরিটি দুর্বলতার কারনে আমরা সাইবার ক্রাইম এর স্বীকার হই। এরকম একটি কোর্স করা থাকলে আমরা এই সমস্ত অনাকাঙ্ক্ষিত বিপদ থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারবো।

ইংলিশ ট্রেইনার জনাব রুশদি হাসান বলেছেন, আমি সিকিউরিটি হেড হিসেবে একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে জব করছি। আগে যখন আমরা কোন প্রেজেন্টেশন দিতাম তখন ডিজাইন টিম আমাদের সেটি রেডি করে দিতো। কিন্তু বর্তমানে আমি নিজে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার পর এখন নিজের কাজটি নিজের হাতে করি, তাই কাজটি হয় আরো বেশী প্রানবন্ত।

ডিজিটাল মার্কেটিং ট্রেইনার ইমদাদুল হক লিখন তাঁর বক্তব্যে বলেছেন, আমরা যখন ট্রেডিশনাল মার্কেটিং সিস্টেমে কোন টিভিতে এড দিই, তখন আমাদের এড নারী শিশু বৃদ্ধ সহ সকল বয়সের মানুষ দেখতে পায়। যার আমার প্রোডাক্টটির এড দেখার দরকার নেই, তাকেও আমরা এড দেখিয়ে বিরক্ত করি আবার নিজের টাকাও নষ্ট করি। অন্যদিকে ডিজিটাল মার্কেটিং এ আমরা স্পেসিফিক অডিয়েন্স টার্গেট করে তাকেই এড দেখাই, যার আমার প্রোডাক্ট বা সার্ভিসটি প্রয়োজন।

পেন্টানিক আইটির এসিস্টেন্ট প্রিঞ্চিপাল অফিসার জনাব, কাজী নিশাত বলেন যে, ঠিক দুই বছর আগে যখন আমাদের স্বপ্নদ্রষ্টা সিইও স্যারের হাত ধরে কার্যক্রম শুরু করি, তখনো আমরা জানতাম না যে, দুই বছরে আমরা কতটা সাড়া ফেলতে পারবো। আমরা সবসময় চেষ্টা করি শেখার বিষয়বস্তুগুলো অনেক সহজ করে ট্রেইনিদের সামনে প্রেজেন্ট করার। যে লেভেল এর ট্রেইনি যেভাবে শেখালে শিখতে পারবে, তাদের সাইকোলোজি এনালাইসিস করে আমরা সেভাবেই আমাদের কনটেন্টগুলো তৈরি করার চেষ্টা করি।

২০২২ সালের মধ্যে পেন্টানিক আইটির সাবস্ক্রাইবার ১ মিলিয়ন হবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন সকলে। অংশগ্রহণকারি প্রশিক্ষণার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায় যে তারা এরকম একটি প্রোগ্রামে আসতে পেরে অনেক আনন্দিত। এছাড়াও দূর দুরান্ত থেকে অনেকেই আসতে না পেরে মেসেজের মাধ্যমে দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।
Design & Developed by Online Bangla News
themesba-lates1749691102