এ টি এম শামসুজ্জামান আর নেই

0
30

চলে গেলেন বাংলাদেশি চলচ্চিত্র জগতের প্রবীণ অভিনেতা, চিত্রনাট্যকার এটিএম শামসুজ্জামান । শনিবার সকালে সূত্রাপুরের বাসায় এটিএম শামসুজ্জামানের মৃত্যু হয় বলে সালেহ জামান তার ছোট ভাই জানায় আমাদের।
আজ ২০ ফেব্রুয়ারী শনিবার জোহরের নামাজের পর জানাজা শেষে তাকে জুরাইন কবরস্থানে তার বড় ছেলে কামরুজ্জামান কবীরের পাশে সমাহিত করা হবে বলে জানিয়েছেন তার ছোট ভাই সালেহ। এই প্রবীণ অভিনেতা দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত কারনে নানা জটিলতায় ভুগছিলেন বলে জানা যায় । তিনি প্রচণ্ড শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে গত বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারিও তাকে হাসপাতালে যেতে হয়েছিল। ওই দিন বিকালে তাকে রাজধানীর গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। হাসপাতাল থেকে গতকাল শুক্রবার বিকালে সেখান থেকে বাসায় ফিরেছিলেন তিনি। খাবার খেলেই বমি ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ডা. আতাউর রহমান খানের তত্ত্বাবধানে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। হাসপাতালে তার করোনা পরীক্ষা করানো হলে ফলাফল নেগেটিভ আসে। সকালে পরিবারের সদস্যরা নাস্তার জন্য ডাকতে গিয়ে বুঝতে পারেন, তার ঘুম আর ভাঙবে না। তার পুত্রবধূ রুবী বলেন, ‘ঘুমের মধ্যেই বাবার মৃত্যু হয়েছে। গতকালই বাবাকে বাসায় আনা হয়েছিলো। কাল রাতে বাবার সঙ্গে সবাই অনেক কথাও বলেছিলাম আমরা। অথচ আজ বাবা নেই।’ ডিরেক্টরস গিল্ডের একজন সাধারণ সম্পাদক এস এ হক অলিক বলেন, ‘ কিছুক্ষণ আগে তার বাসা থেকে ফোন করে খবরটি আমাকে জানানো হয়েছে। এবং কাল রাতে বেশ দেরি করে ঘুমিয়েছিলেন সে। আজ সকালে নাশতা করার জন্য তাকে ডাকতে গিয়ে পরিবারের সদস্যরা দেখতে পান তিনি আর বেঁচে নেই। দীর্ঘ ছয় দশকের ক্যারিয়ারে অভিনয়ের জোরেই নিজের নামটিকে একটি প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে পেরেছিলেন এটিএম শামসুজ্জামান। এ টি এম শামসুজ্জামান ছিলেন একাধারে একজন পরিচালক, চিত্রনাট্যকার, সংলাপকার ও গল্পকার। তার লেখা চিত্রনাট্যের সংখ্যাও শতাধিক।
অভিনয়ের জন্য আজীবন সম্মাননার পাশাপাশি বাংলাদেশে পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া এই তারকা এটিএম শামসুজ্জামান একুশে পদকে ২০১৫ সালে ভূষিত হন।
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে এক বিবৃতিতে বলেছেন, “এটিএম শামসুজ্জামানের মৃত্যু দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। বাংলাদেশে অসাম্প্রদায়িক চেতনার বিকাশে তার অবদান মানুষ শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে।”
এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার এক শোকবার্তায় বলেছেন, “জনপ্রিয় শিল্পী এটিএম শামসুজ্জামান তার অসাধারণ অভিনয়ের মধ্য দিয়ে আজীবন দেশবাসীর হৃদয়ে বেঁচে থাকবেন।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here