রবিবার, অক্টোবর ২৫, ২০২০
বিকাল ৪:০২

আজ রবিবার ২৫ অক্টোবর, ২০২০ | ৯ কার্তিক, ১৪২৭

বিজ্ঞাপন বা যে কোন প্রয়োজনে যোগাযোগ করুনঃ +88 01880 16 23 24

Home অপরাধ ভোলার চরফ্যাসন হাতিয়া লঞ্চঘাটে অতিরিক্ত টোল আদায়, যাত্রী হয়রানি

ভোলার চরফ্যাসন হাতিয়া লঞ্চঘাটে অতিরিক্ত টোল আদায়, যাত্রী হয়রানি

ভোলার চরফ্যাশনের বেতুয়া লঞ্চঘাটে টিকিটের নামে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টোল আদায় করা হচ্ছে। যাত্রী টিকিটের পাশাপাশি মালামাল উঠামানায় ২-৩ গুণ বেশি টাকা আদায় নিত্য ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে এখানে। এ নিয়ে ঘাটের স্টাফ ও কুলি মজুরদের হাতে নাজেহাল হচ্ছেন যাত্রীরা।

117639817 337973170690677 8291750585009531352 n

রাজনৈতিক ক্ষমতাকে ব্যবহার করে সাধারণ যাত্রীদের জিম্মি করে দিনের পর দিন ইজারাদার এই কাজ করে আসছেন বলে ভুক্তভোগীদের অভিযোগ। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত জুলাই মাসে ২০২০-২১ অর্থ বছরের জন্য ৮ লাখ টাকায় বেতুয়া লঞ্চঘাট ইজারা নেন উপজেলার আসলামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নূরে আলম মাস্টার। এর আগে গত অর্থ বছরে ৪ লাখ টাকায় এই ঘাটের ইজারা নিয়ে ছিলেন আবু জাফর ভুঁইয়া। তবে চলতি ইজারা মাত্র ২ মাস না যেতেই বাড়তি টোল আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে নূরে আলমের বিরুদ্ধে। চরফ্যাশনের লেতরা, ঘোষেরহাট ও বেতুয়াঘাট থেকে প্রতিদিন ঢাকা-চরফ্যাশন ১ ডজন যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল করে। এর মধ্যে কেবল বেতুয়াঘাট থেকেই প্রতিদিন ৬টি লঞ্চ ঢাকা-চরফ্যাসন-ঢাকা আসা-যাওয়া করছে। এই ঘাট দিয়ে প্রতিদিন কয়েক হাজার যাত্রী ও মালামাল পরিবহন হচ্ছে। অভ্যন্তরীন নৌ বন্দর কতৃপক্ষের নিয়ম উপেক্ষা করে ঘাট টিকিটের নামে যাত্রী প্রতি ১০ টাকা নামে টোল আদায় করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে মালামাল উঠাতে ২০ টাকার স্থলে ২০০ টাকা ভাড়া আদায় করছেন ইজারাদারের লোক। ইজারাদারের নির্দেশেই বাড়তি এই টিকিটের হার নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঘাট সংশ্লিষ্টরা। আবদুল্লাহপুর গ্রামের কামাল হোসেন অভিযোগ করেন, দেশের সব লঞ্চঘাটে যাত্রী উঠতে ৫ টাকা ঘাট টিকেট দিতে হয়। ব্যতিক্রম কেবল চরফ্যাশনের বেতুয়াঘাটে। এখানে যাত্রী প্রতি ১০টাকা করে দিতে হচ্ছে। প্রতিবাদ করতে গেলে ইজারাদারের লোকজনের হাতে নাজেহাল হতে হচ্ছে লঞ্চ যাত্রীদের। এদিকে টিকেটের হার নিয়ে কথা বলতে গেলে প্রতিদিনই ২-৪ জন যাত্রী ঘাট স্টাফদের হাতে লাঞ্চিত হচ্ছেন। এছাড়া যাত্রীদের মালামাল উঠাতে ২০ টাকার স্থলে ২০০ টাকা ভাড়া দিতে হচ্ছে। যা দেশের কোথাও নেই বলে অভিযোগ করেন শশীভূষণের যাত্রী আফজাল উদ্দিন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুুক একাধিক লঞ্চস্টাফ অভিযোগ করেন, পল্টুনে লঞ্চ ভিড়াতে গেলে পূর্বে ৫০০ টাকা দেওয়া হতো ইজারাদারকে। কিন্তু বর্তমান সময়ে ইজারাদার নূরে আলম মাস্টারের লোকরা জোর করে লঞ্চ প্রতি আরো ১ হাজার টাকা আদায় করেন। প্রতিবাদ করতে গেলে লঞ্চ পল্টুনে ভিড়তে দিবে না বলে হুমকি দেয়। অভিযোগ প্রসঙ্গে বেতুয়া লঞ্চঘাটের ইজারাদার মো. নূরে আলমের সঙ্গে কথা বলে প্রতিদিনের সংবাদ। তিনি জানান, করোনাকালে যাত্রী কম থাকায় যাত্রী প্রতি ঘাট টিকেট ১০ টাকা করে আদায় করা হয়েছে। সারা দেশের সব ঘাটের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এটা করা হয়েছে। অভ্যন্তরীন নৌ-বন্দর ভোলার সহকারী পরিচালক কামরুজ্জামান যাত্রীদের অভিযোগ ও ইজারাদারের বক্তব্য প্রসঙ্গে বলেন, ৫ টাকা করে ঘাট টিকিট নির্ধারণ করা আছে। বেশি নেওয়ার সুযোগ নেই। অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার সুষ্পষ্ট অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে সেইসব ইজারাদারের ইজারা বাতিল করা হবে।

গাজী তাহের লিটন, ভোলা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -sidebar sqr ad

Most Popular

কোটচাঁদপুর উপজেলার ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কর্মির উপর অতর্কিত হামলা

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার সলেমানপুর ৪নং ওয়ার্ডের সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি তরিকুল ইসলাম (রনি) অতর্কিত হামলার শিকার হয়েছেন। তিনি জানান, কোটচাঁদপুর পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সহিদুজ্জামান...

পিকাপের ধাক্কায় নিহত হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী

জানা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায় ৩য় বর্ষে অধ্যায়নরত এই ছাত্রী নিতী পড়াশোনার পাশাপাশি একটি পার্ট টাইম জব করতো। জব থেকে নিজের বাসা ভাটারায় ফেরার...

জোহরের নামাজ চার রাকআত হইবার কারণ।

জোহরের নামাজ হযরত ইব্রাহীম আলাইহিসসালাম চারি কারণে চারি রাকআত নামাজ পড়িয়াছিলেন। ১ম রাকআত - আল্লাহ তায়ালা তাঁহার কার্যে রাজী থাকার জন্য, ২য় রাকআত -...

ফজরের নামাজ দুই রাকআত হওয়ার কারণ!

প্রশ্নঃ- নামাজসমূহ ২/৩/৪ রাকআত হইবার কারণ কি? উত্তরঃ- হযরত আদম আলাইহিসসালাম বেহেশত হইতে দুনিয়ায় পতিত হইবার পর যখন রাত্রির অন্ধকার আসিয়া উপস্থিত হইল, তিনি...

Recent Comments